ঢাকা, রবিবার - ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আলোচিত সংবাদ

আ.লীগের তরুণ নেতৃত্বে এগিয়ে যারা

[print_link]

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে তরুণ নেতাদের স্থান পাওয়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে। বিষয়টি এখন দলের সব মহলেই আলোচনার কেন্দ্রে। 

আওয়ামী লীগের দুই দিন ব্যাপী এই জাতীয় সম্মেলন শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) শুরু হবে। শনিবার (২১ ডিসেম্বর) দ্বিতীয় অধিবেশনে কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন কমিটি নির্বাচন করা হবে।

দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তরুণ নেতাদের জায়গা দিতে চান। এছাড়া বর্তমান কমিটিতে যে তরুণরা ভালো করছেন তাদের আরও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিতে চান।  আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে দলের ৮১ সদস্যের কমিটিতে প্রায় ২৫ জন তরুণ নেতাকে স্থান দেওয়া হয়েছিল। এদের অধিকাংশই সাবেক ছাত্রনেতা। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও সাবেক ছাত্রনেতাদের মধ্যে যারা দীর্ঘ দিন ধরে দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন, তারা এবার কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্ব পাবেন।

কেন্দ্রীয় কমিটিতে থাকা তরুণ নেতাদের আরও গুরুত্বপূর্ণ পদে দেখা যেতে পারে। এদের মধ্যে এগিয়ে আছেন বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন এবং উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। বর্তমান কমিটিতে আসার পর দেলোয়ার হোসেন দায়িত্ব পালনে দক্ষতা ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন বলে জনশ্রুতি আছে। আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটি ইতোমধ্যে কাজের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও পেয়েছে। নতুন কমিটিতে দেলোয়ার হোসেন আরও গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে পারেন। বিপ্লব বড়ুয়া দাপ্তরিক কাজে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন বলে দলের শীর্ষপর্যায়ে সমাদৃত। নতুন কমিটিতে তার পদোন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কেন্দ্রীয় সদস্য এসএম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, আনোয়ার হোসেন আরও গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে পারেন।

আরও পড়ুন  করোনায় সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীর মৃত্যু

এদিকে আওয়ামী লীগের আগামী কার্যনির্বাহী সংসদে নতুন মুখ হিসেবে আরও যাদের নাম আলোচনায় উঠে এসেছে তারা হলেন- ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাইনুদ্দিন হাছান চৌধুরী, বাহাদুর বেপারী, মাহমুদ হাসান রিপন, সা‌বেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, ছাত্রলীগের সা‌বেক নেতা সুভাস সিংহ রায়, মহিউদ্দিন হেলাল, সাজ্জাদ সাকিব বাদশা, সালাহ উদ্দিন মাহমুদ চৌধুরী, সাইফুদ্দিন নাসির, প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া, শাহজাদা মহিউদ্দিন, কামরুজ্জামান আনসারী, মঞ্জুরুল লাভলু, ইশতিয়াক শীমুল, দীপক কুমার, মমতাজ উদ্দীন মে‌হেদী, খলিলুর রহমান, না‌সিম আল মুমিন রুপক, অসিত বরণ বিশ্বাস, আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে নাঈম রাজ্জাক, মাজহারুল ইসলাম মানিক, জয়দেব নন্দী, শ‌ফি আহ‌ম্মেদ, আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য প্রয়াত আবদুস সামাদ আজাদের ছেলে আজিজুস সামাদ ডন, তারেক সামস হিমু, সাজ্জাত হোসেন, ইউনুছ গণি চৌধুরী প্রমুখ।এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেন, কে আসবেন, কারা আসবেন সেটা বলতে পারবো না। এটা জানেন নেত্রী। আমরা যেটা জানি সেটা হচ্ছে, কেন্দ্রীয় কমিটিতে তরুণ ও নারীদের সংখ্যা বাড়বে।

আরও পড়ুন  করোনা : যে সব এমপিকে সংসদে যেতে মানা

আলোচনায় স্বচ্ছ ভাবমূর্তির বেশ কয়েকজন তরুণ নেতার নাম রয়েছে। তালিকার উপরে আছেন বঙ্গবন্ধুর পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য। গত কাউন্সিলে বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজিব ওয়াজেদ জয়, রংপুর জেলার এক নম্বর সদস্য হন।

অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বিশ্ব পরিমণ্ডলে নিজের অবস্থান করে নিয়েছেন। শেখ রেহানার ছেলে রেদওয়ান সিদ্দিক ববি যুক্ত রয়েছেন গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআরআই’র সঙ্গে। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সরাসরি যুক্ত না হয়েও সংগঠনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তারা।শেখ হেলাল উদ্দিনের ছেলে শেখ সারহান নাসের তন্ময় এরই মধ্যে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আসন্ন সম্মেলনে এদেরকে কমিটিতে দেখতে চান সংগঠনের তরুণ নেতারা।

আরও পড়ুন  চসিক নির্বাচনে সরে দাঁড়ায়নি আ.লীগের ১২ বিদ্রোহী

নীতি নির্ধারকরা জানান, বঙ্গবন্ধু পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মকে কিভাবে দলে অন্তর্ভুূক্ত করা হবে সে সিদ্ধান্ত নেবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী। এর বাইরে স্বচ্ছ ইমেজের বেশ কয়েকজন তরুণ রয়েছেন আওয়ামী লীগের হাইকমাণ্ডের নজরে। যারা এরই মধ্যে তাদের কাজ আর দক্ষতার প্রমাণও দিয়েছেন।BBআলোচনায় আছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রিপন, সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাহিম রাজ্জাক, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট বোন সৈয়দা জাকিয়া নূরসহ কয়েকজন তরুণ নেতার নাম। ছাত্রলীগের সাবেক ত্যাগী নেতাদের নামও আছে এই তালিকায়।

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে সবসময় অগ্রাধিকার পায় তরুণ নেতৃত্ব। তবে এবার তরুণদের নিয়ে প্রত্যাশাটা একটু বেশি। আগামী ১৫ বছর যারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেবেন এমন তরুণদের দেখা যেতে পারে কেন্দ্রীয় কমিটিতে।

সিএনএন ক্রাইম

আলোচিত সংবাদ

এ বিভাগের আরও

সর্বশেষ