ঢাকা, মঙ্গলবার - ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আলোচিত সংবাদ

যেন টাকার খনি, বাসায় ১৫ বস্তা টাকা

[print_link]

Share on facebook
Share on whatsapp
Share on twitter
Share on linkedin

ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানের সময় গ্রেপ্তার হওয়া গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা এনামুল হক ইনু ও তার ভাই রুপম ভূঁইয়ার পুরান ঢাকার বাসা থেকে নগদ ২৬ কোটি ৫৫ লাখ ৬০০ টাকা ও ৫ কোটি টাকার এফডিআর এবং প্রায় এক কেজি ওজনের স্বর্ণালঙ্কারসহ বিপুল পরিমাণ বিদেশী মদ জব্দ করেছে পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাব একশন ব্যাটালিয়ন।

ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে র‌্যাবের একটি দল সোমবার রাত বারোটায় পুরান ঢাকার ১১৯ লালমোহন সাহা স্ট্রিটে অভিযান শুরু করে। ৬ তলা বাড়ির নিচতলায় ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম এর নেতৃত্বে এ অভিযান শুরু হয়।এর আগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর তাদের একাধিক বাসা থেকে ৭৩০ ভরি সোনা ও নগদ ৫ কোটি টাকা জব্দ করেছিল র‌্যাব।

আরও পড়ুন  চট্টগ্রামে ভারি বর্ষণের কারনে পাহাড়ধসের আশংকা

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রূপন ভূঁইয়া। দুই ভাইয়ের এ বাড়িটি ছিল টাকার গোডাউন।

অভিযান সংশ্লিষ্টরা জানান, গভীর রাতে পুরান ঢাকার ১১৯ লালমোহন সাহা স্ট্রিটে এনামুল ও রূপন ভূঁইয়ার বাড়িতে অভিযান শুরূ করে র‌্যাব। পাঁচতলা বাড়িটির নিচতলার একটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে এ বিপুল অর্থ উদ্ধার করা হয়। লোহার ভল্টের মধ্যে এক হাজার টাকার নোটের বান্ডেলগুলো থরে থরে সাজানো ছিল।র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রকিবুল হাসান জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার মধ্যরাত থেকে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত পুরান ঢাকার লালমোহন স্ট্রিটের ওই ছয়তলা বাড়ির নিচতলায় অভিযান চালানো হয়। অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে ২৬ কোটি ৫৫ লাখ টাকা, ১ কেজি স্বর্ণ ও ৯ হাজার ইউএস ডলার উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন  আজ দ্বাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশন

গত সেপ্টেম্বরে শুরূ হওয়া ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর থেকেই আলোচনায় আসেন দুই ভাই এনামুল হক ও রূপন ভূঁইয়া। অভিযানের পর থেকেই তারা পলাতক ছিলেন।

অবশেষে গত ১৩ জানুয়ারি রাজধানীর অদূরে কেরাণীগঞ্জ থেকে এনামুল ও রূপনকে গ্রেফতার করে সিআইডি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এনামুল ও রূপন গত ছয় থেকে সাত বছরে পুরান ঢাকায় বাড়ি কিনেছেন কমপক্ষে ১২টি। ফ্ল্যাট কিনেছেন ছয়টি।স্থানীয় লোকজন জানান, এ দুই ভাইয়ের মূল পেশা জুয়া। জুয়ার টাকায় এনামুল ও রূপন কেবল বাড়ি ও ফ্ল্যাটই কেনেননি, ক্ষমতাসীন দলের পদও কিনেছেন।

আরও পড়ুন  চট্টগ্রামে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি অভিযানে গ্রেপ্তার ১

২০১৮ সালে এনামুল গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং রূপন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের পদ বাগিয়ে নেন। তাদের পরিবারের পাঁচ সদস্য, ঘনিষ্ঠজনসহ মোট ১৭ জন আওয়ামী লীগ ও যুবলীগে পদ পান। সরকারি দলের এসব পদ-পদবিকে জুয়া ও ক্যাসিনো কারবার নির্বিঘ্নে চালানোর ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে আসছিলেন তারা।

আলোচিত সংবাদ

এ বিভাগের আরও

সর্বশেষ